1. admin@nayaalo.com : Ashrafhabib :
  2. nayaalo.com@gmail.com : News Desk : News Desk
ভৈরবে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে প্রশাসনে কঠোর জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। - Nayaalo
শিরোনাম
ভৈরবে সরকারি ও কবরস্থানের গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ! ডিবি প্রধান হলেন কিশোরগঞ্জের মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। ভৈরব সরকারি চাকরিজীবী ঐক্য পরিষদের বার্ষিক সভায় পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত গোলাম মোস্তফা, নতুন সাধারণ সম্পাদক শফিউল্লাহ তপন ভৈরবে ইউনাইটেড হাসপাতালে নার্সের রহস্যজনক মৃত্যু,স্বজনদের দাবী পরিকল্পিত হত্যা! ইতালি প্রবাসী মোবারক হোসেনের পক্ষ থেকে ভৈরবে নগদ অর্থ প্রদান। বন্যার্তদের পাশে বাংলাদেশ ডেন্টাল পরিষদ। ভৈরবে বিশ্ব রক্ত দাতা দিবসে র‌্যালী আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে পালিত। ভৈরব-কুলিয়ারচরে নৌকা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা ভৈরবে কেন্দ্রীয় যুব কমান্ড এর সভাপতি নজরুল বেপারীর জন্মদিন পালিত। ভৈরবে নানা আয়োজনে যায়যায়দিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত।

ভৈরবে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে প্রশাসনে কঠোর জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১
  • ২২৫ জন দেখেছেন

ভৈরবে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে প্রশাসনে কঠোর জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

ভৈরবে দ্বিতীয় দিনে লগডাউনের বিধিনিষেধ অমান্য করায় ২৫ জনকে জরিমানা!
ভৈরবে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে জোর তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে প্রশাসন। মাঠে উপজেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী ও থানা পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর অবস্থানে রয়েছে।

মানুষকে ঘরের মধ্যে রাখতে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিচালনা করা হচ্ছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার ২৪ জুলাই লকডাউনের দ্বিতীয় দিন উপজেলা প্রশাসনের তৎপরতা ছিলো চোখে পড়ার মতো।

এদিন ঢাকা-সিলেট মহাসড়কসহ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা প্রশাসন।

এ সময় স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাউনের বিধিনিষেধ অমান্য করে বিনা কারণে বাহিরে ঘুরাঘুরি ও দোকানপাট খোলা রাখায় ১৪ জন ব্যক্তিকে মোট ১১ হাজার ১শ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন ভৈরব উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা ফারজানা।

অভিযানে সহযোগিতা করেন ভৈরব থানা পুলিশ।

এছাড়া একই দিনে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় পৃথক ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.
জুলহাস হোসেন সৌরভ।

এসময় সরকারি নির্দেশ অমান্য করে দোকানপাট খোলা রাখা, মাস্ক পরিধান না করা, স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করা ও অকারণে বাইরে ঘোরাঘুরি করায় ১১ জন ব্যক্তিকে মোট ৭হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সহযোগিতা করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও ভৈরব থানা পুলিশ।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.জুলহাস হোসেন সৌরভ বলেন, সারাদেশের ন্যায় ভৈরবেও করোনার রোগীর সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যা বেশি। তাই সবাইকে মাস্ক পরিধান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সচেতন থাকাসহ সরকারি নির্দেশনা মানার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।

এছাড়া জনস্বার্থে মোবাইল কোর্টের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা ফারজানা জানান, আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি লকডাউন বাস্তবায়ন করতে। সাধারণ মানুষকে জরুরি কারণ ছাড়া ঘরের বাইরে বের হতে নিষেধ করছি।

অকারণে কেউ বাইরে ঘোরাঘুরি করলে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আমরা তাদের জরিমানা করছি। জনস্বার্থে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর...
© All rights reserved © 2022 নায়াআলো ডটকম
Developed By HM.SHAMSUDDIN