সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন

নিষিদ্ধ হলেন ভারতীয় উদ্দীয়মান ক্রিকেটার!

  • আপডেট : বুধবার, ৩১ জুলাই, ২০১৯
  • ৪৩ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক||

ফুল হয়ে ফোটার আগেই বড়সড় একটা হোঁচট খেলেন ভারতের তরুণ ক্রিকেটার পৃথ্বি শ্ব। ডোপ টেস্টে পজিটিভ হয়ে আট মাসের জন্য নিষিদ্ধ হলেন যুব বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় অধিনায়ক। মঙ্গলবার পৃথ্বিকে নির্বাসনে পাঠিয়ে দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)।
পৃথ্বির নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে আগামী ১৬ নভেম্বর ২০১৯। এই সময়ে ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলাত পারবেন না তিনি। গত ফেব্রুয়ারিতে তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগটাই সত্যি হয়েছে। এতদিন মাঠের বাইরে ছিলেন পৃথ্বি। তাই তার শাস্তি শুরু হয়েছে গেল ফেব্রুয়ারি শেষ সপ্তাহ থেকেই।
মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বিসিসিআই বলেছে, ‘মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনে রিপোর্ট নথিভূক্ত হয়েছে। পৃথ্বি অনিচ্ছাকৃতভাবে তার পাকস্থলিতে নিষিদ্ধ বস্তু প্রবেশ করিয়েছেন। এই ধরনের বস্তু সাধারণত কাশির সিরাপে পাওয়া যায়। গত ২২ ফেব্রুয়ারি পৃথ্বির মূত্র পরীক্ষা নমুনায় টাবুটালাইন পাওয়া গেছে যা আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনের নিষিদ্ধ বস্তু।’
বোর্ডের অ্যান্টি-ডোপিং টেস্টিং প্রোগ্রামে পজিটিভ হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই হতাশ হয়েছেন পৃথ্বি। তার এই হতাশা শুরু হয়েছে অনেক আগে থেকেই। ইনডোরে মূত্রের নমুনা দেওয়ার পরপরই তার খেলা বন্ধ হয়ে যায়। গত ১৬ জুলাই তাকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করে বিসিসিআই।
এবার তাকে চূড়ান্ত শাস্তি দিল বিসিসিআই। পৃথ্বি অবশ্য অভিযোগ স্বীকার করে নিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি দাবি করেছেন, এটা অনিচ্ছাকৃত ভুল ছিল। সর্দি-ঠাণ্ডাজনিত সমস্যার কারণেই কাশির সিরাপ খেয়ে এমনটা হয়েছে বলে জানান ১৯ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। তার ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট হয়েছে বিসিসিআই। তবু শেষ রক্ষা হয়নি। শাস্তি কিছুটা কম হয়েছে।
পৃথ্বি জানান যে সিরাপ তিনি খেয়েছেন তা শুধুই চিকিৎসার স্বার্থেই। পারফরম্যান্স বৃদ্ধির উপকরণ হিসেবে এটি নেননি তিনি। এ পর্যন্ত ভারতের জার্সিতে দুটি টেস্ট খেলেছেন পৃথ্বি। অভিষেক টেস্টেই সেঞ্চুরি করে আলোড়ন তোলা এই উঠতি তারকা অপেক্ষায় আছেন সীমিত ওভারের ক্রিকেট অভিষেকের।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved Nayaalo.com 2020