1. NewsDesk@gmail.com : News Desk : News Desk
  2. admin@nayaalo.com : Palash3700 :
  3. rakib@gmail.com : Admin : Rakib Musabbir
  4. bhairabkantho@gmail.com : saimur : rj saimur

নারী কেলেঙ্কারি ও স্ত্রীর একাধিক অভিযোগে সহকারী কমিশনার (ভূমির) প্রত্যাহার!

  • আপডেট বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০

 

আশরাফুল আলম:
সহকারী কমিশনার (ভূমি) সারোয়ার সালামের বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রী খাদিজা আক্তার সন্তানের ভরণপোষণ না দেওয়া, মারধর, স্বামীর এক নারীর সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক থাকা, দ্বিতীয় বিয়ে করাসহ একাধিক অভিযোগ করেছিলেন। প্রাথমিকভাবে বেশ কিছু অভিযোগের সত্যতা মিলেছে।

সারোয়ার সালাম নোয়াখালীর হাতিয়ায় কর্মরত ছিলেন।

সারোয়ার সালামের বিরুদ্ধে করা অভিযোগের তদন্ত প্রতিবেদনে প্রাথমিকভাবে সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় সারোয়ার সালামকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদ থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।


স্ত্রীর করা ছয়টি অভিযোগের মধ্যে স্ত্রী ও সন্তানের ভরণপোষণ না দেওয়া, স্ত্রীকে মানসিক নির্যাতন, বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক থাকা, স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার হুমকির প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। যৌতুক দাবির অভিযোগে ঢাকার মহানগর হাকিম আদালতে যৌতুক নিরোধ আইনে মামলা বিচারাধীন আছে।

২৫ মার্চ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব ছাইফুল ইসলামের সই করা চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, সারোয়ার সালামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ জানিয়ে তাঁর স্ত্রী খাদিজা আক্তার আবেদন করেন গত বছরের ২০ অক্টোবর। চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনারের একান্ত সচিব এবং সাবেক জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার (রাজস্ব) তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেন। বিভাগীয় কমিশনার প্রতিবেদনের সঙ্গে একমত পোষণ করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠিয়ে দেন। তদন্ত প্রতিবেদনে গত ৩ মার্চ সই করেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার খোন্দকার মো. ইখতিয়ার উদ্দীন আরাফাত।

তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, খাদিজা আক্তার মুঠোফোনে কথোপকথনের আটটি অডিওর সিডি জমা দিয়েছিলেন। সারোয়ার সালামও এসব অডিও তাঁর বলে স্বীকার করেছেন। কথোপকথনে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের বিষয়ে অভিযুক্ত নারীর নাম উল্লেখ করেন খাদিজা, সারোয়ার সালাম তখন কোনো মন্তব্য করেননি। শুধু একটি অডিওতে সারোয়ার সালাম তাঁর বিরুদ্ধে করা বিভিন্ন অভিযোগ অস্বীকার করেন। খাদিজাকে শারীরিক মারধর করেছেন, তার প্রমাণ হিসেবে মারধরের পর তোলা কয়েকটি ছবিও জমা দিয়েছিলেন খাদিজা।

খাদিজা আক্তার মুঠোফোনে জানান, তাঁর মেয়ের বয়স এখন ৩ বছর ৪ মাস। ২০১৮ সালের নভেম্বর মাস থেকে সারোয়ার সালাম তাঁর ও মেয়ের কোনো ভরণপোষণ দিচ্ছেন না। বর্তমানে রাজধানীর ডেমরায় থাকেন খাদিজা।

খাদিজা বললেন, ‘মা ও মেয়ে আমাদের দুজনের জীবনই কষ্টে কাটছে।

স্ত্রীর করা বিভিন্ন অভিযোগ প্রসঙ্গে সারোয়ার সালাম বলেন যে নারীর সঙ্গে জড়িয়ে মিথ্যা অভিযোগ দেওয়া হচ্ছে, তিনি আমার কলিগ, এর বাইরে আর কোনো সম্পর্ক নেই।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved Nayaalo.com 2020
Site Customized By NewsTech.Com