মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রামে কসাই লেদুর অত্যাচারে অতিষ্ট নগরবাসি

  • আপডেট : বুধবার, ২৯ জুলাই, ২০২০
  • ৭৮ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক।।

নগরীর বায়েজিদ থানাধিন অক্সিজেন এলাকায় কুখ্যাত কসাই লেদুর ত্রি-
মাত্রিক কৌশলে চলছে ডিজিটাল জোরজুলুম অত্যাচার। কৌশল
পরিবর্তন করে বিভিন্ন সময় খোলস পাল্টিয়ে নিত্য নতুন রূপ ধারণ করে
প্রতাড়ণার ফাঁদ পেতে শিকার করছে নিরীহ মানুষের মান সন্মান সহ লক্ষ কোটি টাকা। দিনের আলোতে প্রচন্ড ধার্মিক এবং একজন সমাজ
সেবক হলেও রাতের আঁধারে পাল্টে যায় তার রূপ। লেদুর মিষ্টি সুরে কথার জালে ফেঁসে গিয়ে সবাই তাকে প্রথমে একজন পীরের মাশায়েক
শাহসুফি মনে করলেও আসলে সে একজন ভয়ংকর নিষ্ঠুর প্রকৃতির
লুছিফার। খুব সহজে-ই খোলস বদল করে জোর-জুলুম অত্যাচার করতে
মোটেই পিছ-পা হয়নি এই ধুরন্দর প্রকৃতির বদমাইশটি। কোভিড-
১৯ করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাবে বিশ্ব মানবতা ধুকেধুকে কাঁদলেও
এই বদমাইশটির অন্তরে কখনও মানবতার সূর্য উদয় হয়নি। জানা গেছে
সম্প্রতি সিটিজি ক্রাইম টিভির অফিসে গুন্ডাবাহিনী নিয়ে হামলা
এবং অফিসের ২৫লক্ষ টাকার মালামাল লুটতরাছ করে আলোচনায় আসে কসাই লেদু। এ বিষয়ে দেশের সাংবাদিকদের বিভিন্ন মহল থেকে
প্রতিবাদ এবং নিন্দা জানিয়েছেন। বিশেষ করে বাংলাদেশ আইপি
টিভি ফোরামের সভাপতি ফজলুল হক, বাংলাদেশ মোফাস্বল সাংবাদিক
ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর, চট্টগ্রাম রিপোটার্স
ইউনিটির সভাপতি কিরণ শর্মা ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ জার্নালিস্ট
অর্গানাইজেশন (এফ,বি,জে,ও) এর চেয়ারম্যন এস,এম মোরশেদ, জাতীয়
সাংবাদিক কল্যাণ পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দীন রানা, জাতীয়
সাংবাদিক সংস্থার চেয়ারম্যান লায়ন নূরুল ইসলাম, রুরাল জার্নালিস্ট
ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এস,এম জহিরুল ইসলাম আরও অনেকে
সিটিজি ক্রাইম টিভির অফিসে হামলার বিষয়ে তীব্র প্রতিবাদ
জানিয়ে এবং অপরাধিকে আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত বিচারের দাবী
জানিয়ে তারা বলেন, অনলাইন ভিত্তিক সিটিজি ক্রাইম টিভি একটি
জনপ্রিয় চ্যানেল, এছাড়া দেশের যেকোন গণমাধ্যমকর্মী বা
প্রতিষ্ঠানের উপর পেশী শক্তিধরের হামলা আমরা সহ্য করা হবেনা। এতে
সাংবাদিক নেতারা আরও বলেন যে, দেশের সর্ব শ্রেণীর সাংবাদিকেরা

সকারের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে জনসাধারণকে সচেতন করে
আসছেন। এসময় নেতারা অপরাধীদের প্রতি আঙ্গুল উঁচিয়ে বলেন
সাংবাদিকরা কখনো সন্ত্রাসীদের পেশী শক্তিকে ভয় পায়না। যদি ভয়
পেতেন তাহলে দেশে শাহেদ, শামীম ,পাপিয়ার মত কালো বিড়াল গুলোকে
কউ চিনত না। সন্ত্রাসীদের শেকড় যতই গভিরে থাকুক না কেন! তাদের
মূলসহ তুলে এনে রহস্য উদঘটন করতে দেশের সকল মিডিয়া কর্মীরা
বদ্ধপরিকর। এদিকে সিটিজি ক্রাইম টিভির চট্টগ্রাম অফিসে হামলার
প্রতিবাদে বিচার চেয়ে ভবনের মালিক আব্দুল নবী লেদু ও তার স্ত্রীর
বিরুদ্ধে হামলা এবং লুটতরাছের অভিযোগ এনে চট্টগ্রাম মহানগর
অতিরিক্ত চীফ মেট্টোপলিটন আদালতে ফৌজদারী অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। গত ১৬জুলাই, ক্রাইম টিভির চিত্র গ্রাহক আব্দুল করিম বাদী হয়ে এ মামলা করেন। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে ২০১৭ সনের ২৮ সেপ্টেম্বর অভিযুক্ত আব্দুল নবী লেদুর নির্মিত নিজস্ব বহুতল ভবনের ৪র্থ তলায় একটি ফ্লোরে সিটিজি ক্রাইম টিভির কার্য্যক্রম পরিচালনা করা হবে মর্মে বাদীর মালিক আজগর আলী মানিক বিবাদীর সাথে ৫০ হাজার টাকা এককালিন জামানতে এবং ৭হাজার টাকা মাসিক ভাড়ায় ৫ বছর মেয়াদে চুক্তিপত্র স্বাক্ষরিত হয়। এতে আরও উল্লেখ করা হয় যে, সম্পাদিত চুক্তিপত্রের মেয়াদ শেষ হওয়ার ২বছর পূবে-র্ই অভিযুক্ত ব্যক্তি চুক্তিপত্রের শর্ত ভঙ্গ করে স্থানীয় ও রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে বাদীর মালিক আজগর আলী মানিকের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া দাবি করে। বিবাদীর অনৈতিক দাবিকৃত চুক্তি বিরোধী অতিরিক্ত ভাড়া পরিশোধ করতে পারবেনা বলে পরিস্কার জানিয়ে দেয় আজগর আলী মানিক। একপর্যায় ক্ষিপ্ত হয়ে বাদীর মালিককে চরম অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন অভিযুক্ত আব্দুল নবী লেদু।এছাড়া অভিযুক্ত আব্দুল নবী লেদুর স্ত্রীর সহযোগিতায় সিটিজি ক্রাইম টিভির মালিক আজগর আলী মানিকের স্ত্রী সন্তানদের কৌশলে বাসায় ডেকে এনে কালো গ্লাসওয়ালা গাড়িতে করে অন্য কোথাও নিয়ে গিয়ে সকলকে লাপাত্তা করে ফেলবে বলে সূত্রে জানা যায়। এতে আরও
উল্লেখ করা হয় যে, গত ৩জুলাই সকাল আনুমানিক ১১টার সময় লেদু
দম্পতি সহ আরও ১০/১২ জনের একটি সশস্ত্র দল সিটিজি ক্রাইম টিভির অফিসে এসে বাদী সহ আরও কয়েক জন অফিস সহকারীদের প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে অফিসের যাবতীয় আসবাবপত্র লুট করে নিয়ে যায়। লুন্ঠিত মালামালের মধ্য রয়েছে এসি, ক্যমেরা, স্ট্যান, কম্পিউটার ও ফার্নিচার সহ প্রায় ২৩ লক্ষ, ৪১ হাজার, ৪’শ টাকার মালামাল। এব্যপারে চট্টগ্রাম মহানগর আদালত এবং মালার বাদীপক্ষের এ্যাডভোকেট মোঃ আবুতালেব এপ্রতিনিধিকে বলেন বায়েজিদের লেদু একজন জোটচোর, সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ এবং বদমাইশ প্রকৃতির লোক। তার বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে বিভিন্ন থানা ও আদালতে ক’য়েক ডজন মামলা রয়েছে। তবে লেদু তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে আজকের এই মামলাটি তদন্ত করার ভার মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি)কে দিয়েছেন আদালত। এদিকে সিটিজি ক্রাইম টিভির চট্টগ্রাম অফিসে হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে লেদু দম্পতির বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন সচেতন মহল থেকে গ্রেপ্তারের দাবী এবং সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved Nayaalo.com 2020