1. admin@nayaalo.com : Ashrafhabib :
  2. nayaalo.com@gmail.com : News Desk : News Desk
যে মেয়ের মা যতো বেশি চালাক,সেই মেয়ের কঁপালে ততো তাড়াতাড়ি তালাক! - Nayaalo
শিরোনাম
ডিপজলের সম্মানহানি করার কোনো অধিকার নিপুণের নেই: দেলোয়ার জাহান ঝন্টু ভৈরবে “শেখ হাসিনা ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি”অনুমোদন পেল। বাজিতপুর উপজেলার বাহেরবালী গ্রামে মিনহাজের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নিরপরাধ তরুন সমাজ সেবক তানবিরের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করায় পাল্টা মানববন্ধন রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ, ভৈরব এর রোভার গ্রুপ বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন। নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) ভৈরব শাখা ৩য় বারের মতো জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সংগঠনের স্বীকৃতি লাভ। নিরাপদ সড়ক চাই ভৈরব শাখার পরিচয় পত্র বিতরণ ও মতবিনিময় অনুষ্ঠিত। নূরানী মশার কয়েল ফ্যাক্টরীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি ! বিএমডিসি ছাড়া ভুল চিকিৎসা হয়েছে বলার অধিকার কারও নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী যে মেয়ের মা যতো বেশি চালাক,সেই মেয়ের কঁপালে ততো তাড়াতাড়ি তালাক! ভৈরব ডক্টরস ক্লাবের নব নির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কে কেয়ার জেনারেল হাসপাতাল -এর পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা।

যে মেয়ের মা যতো বেশি চালাক,সেই মেয়ের কঁপালে ততো তাড়াতাড়ি তালাক!

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪
  • ১৫ জন দেখেছেন

অনলাইন ডেস্ক:

বিবাহিত মেয়েদের প্রধান শত্রু তার নিজের মা!
কারণ, তিনি তার মেয়ের সংসারে এতটাই নাক গলান যে, মেয়ের কল্যাণের চেয়ে অকল্যাণই বেশি হয়।
ইদানিং সমাজে দেখা যাচ্ছে মেয়ের মায়েরা এতই নাক গালাচ্ছে মেয়ের সংসারে, মনে হচ্ছে মেয়ে সংসার করে না বরং মেয়ে মায়েরাই করে, যদি সেখানে স্বামী দোষ না থাকবে, সেখানেও মেয়ের মায়ের একটাই কথাই থাকবে মেয়েকে ফোন দিয়ে, (যদি তোর সংসার করতে না ইচ্ছে করে চলে আয় তোর জন্য আমার ঘরের দরজা খোলা)।
তবে ঘরের দরজা খুলতে যেয়ে তো ? আপনার মেয়ে ও মেয়ের স্বামীর ভালোবাসা দরজা বন্ধ করে দিচ্ছে না তো?
দেশে বর্তমানে বিবাহ বিচ্ছেদের হার ১ দশমিক ৪ শতাংশ, যা ২০২১ সালে ছিল শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ। সংখ্যা রাজধানীতে সবচেয়ে বেশি। গত বছর ঢাকায় প্রতি ৪০ মিনিটে ১টি করে তালাক হয়েছে যা ছিল সব চাইতে বড় রেকর্ড,
এবার দেখা যাক, দেশে বর্তমানে বিবাহ বিচ্ছেদের হার ১ দশমিক ৪ শতাংশের ভিতরেই দেখা যায় ১ শতাংশ তালাক হয় মেয়ের পরিবার মা কিংবা মা খালার উভয়ের উসকানিতে,আর বাকী ০.৪ শতাংশ হয় নিজেদের মধ্যে মন-মানসিকতা না মেলার কারণে কিংবা স্বামীর পরকীয়া অথবা স্ত্রী পরকীয়া, কিংবা স্বামীর মাদকাসক্ত হওয়ার ও মারধর করার কারণে।
প্রতি ১০০ পরকীয়া তালাকের কারণ তদন্তে দেখা যায় ৭০জন নারী, পরকীয়া আসক্ত পুরুষকে তালাক দিয়ে থাকেন এবং ৩০জন পুরুষ শুধু নারী কে পরকীয়া কারনে তালাক দেন। তাহলে কি পুরুষের ক্ষমা নারীর চাইতে বেশি? সেটি প্রকাশ না করলেই নয়, কারণ আমি লেখক ও একজন পুরুষ এবং সেটা নারী পত্রিকা পাঠকদের বিরোধীতা হয়ে যায় যা পত্রিকা নিয়ম কানুন আইনের বাহিরে। সকল মেয়ের মায়ের উদ্দেশ্য বলা হোক যারা মেয়ের সংসার এ বেশি নাক গালান, আপনি – আপনার মেয়ের জন্য বেশি ভালোবাসা দেখানোটা যেন পরবর্তীতে আপনার মেয়ের বিচ্ছেদ না ঘটে যায়।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর...
© All rights reserved © 2020-2024 নায়াআলো ডটকম
Developed By HM.SHAMSUDDIN