1. admin@nayaalo.com : Ashrafhabib :
  2. nayaalo.com@gmail.com : News Desk : News Desk
ভৈরব পৌরসভার নতুন বাজেট প্রায় ৮৫ কোটি টাকা -মেয়র ইফতেখার হোসেন বেনু - Nayaalo
শিরোনাম
ভৈরব চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি নির্বাচনে সভাপতি পদে আব্দুল্লাহ আল মামুন, সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে মোশাররফ হোসেন ও সহ-সভাপতি পদে জাহিদুল হক জাবেদ বিজয়ী! ডিপজলের সম্মানহানি করার কোনো অধিকার নিপুণের নেই: দেলোয়ার জাহান ঝন্টু ভৈরবে “শেখ হাসিনা ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি”অনুমোদন পেল। বাজিতপুর উপজেলার বাহেরবালী গ্রামে মিনহাজের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নিরপরাধ তরুন সমাজ সেবক তানবিরের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করায় পাল্টা মানববন্ধন রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ, ভৈরব এর রোভার গ্রুপ বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন। নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) ভৈরব শাখা ৩য় বারের মতো জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সংগঠনের স্বীকৃতি লাভ। নিরাপদ সড়ক চাই ভৈরব শাখার পরিচয় পত্র বিতরণ ও মতবিনিময় অনুষ্ঠিত। নূরানী মশার কয়েল ফ্যাক্টরীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি ! বিএমডিসি ছাড়া ভুল চিকিৎসা হয়েছে বলার অধিকার কারও নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী যে মেয়ের মা যতো বেশি চালাক,সেই মেয়ের কঁপালে ততো তাড়াতাড়ি তালাক!

ভৈরব পৌরসভার নতুন বাজেট প্রায় ৮৫ কোটি টাকা -মেয়র ইফতেখার হোসেন বেনু

  • আপডেটের সময় : বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১
  • ২৩৮ জন দেখেছেন

আশরাফুল আলম:

কিশোরগঞ্জের সেরা ভৈরব পৌরসভার ২০২১-২০২২ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। ২৯ জুন বিকালবেলা পৌরসভার হলরুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ওই বাজেট ঘোষিত হয়। পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ইফতেখার হোসেন বেনু এই অর্থ বছরের ৮৪ কোটি ৭৯ লাখ ৩৬ হাজার ৪০১.৯০ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করেন। যা ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে ছিলো ৭৭ কোটি ৫৫ লাখ ৪০ হাজার ১৩১ টাকা ৩৬ পয়সা ছিল। যা গত বছরের চেয়ে ৭ কোটি টাকা বেশী।

বাজেটে আয় ধরা হয়েছে ৮৪ কোটি ৭৯ লাখ ৩৬ হাজার ৪শ ১ টাকা ৯০ পয়সা। এরমধ্যে রাজস্ব খাত থেকে আয় ধরা হয়েছে ২৩ কোটি ৯৪ লাখ ৮৫ হাজার ৭৯৬ টাকা ৬ পয়সা। পানি সরবরাহ শাখা থেকে ২ কোটি ২৪ লাখ ৭৫৮ টাকা ৫৬ পয়সা। এবং উন্নয়ন সহায়তা তহবিল থেকে আয় ধরা হয়েছে ৫৮ কোটি ৬০ লাখ ৪৯ হাজার ৮৪৭ টাকা ২৮ পয়সা।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পৌর মেয়র জানান, বাজেটে নতুন কোন কর আরোপ করা হয়নি। বাড়ানো হয়েছে বেশ কয়েকটি সেবা খাতের পরিধি। করোনাকালীন পৌর নাগরিকদের আর্থিক টানাপোড়েনের কারণে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানান তিনি। তবে মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দরিদ্রদের খাদ্য সহায়তার জন্য বাজেটে কোনো বরাদ্ধ রাখা হয়নি। কেনো ? এমন প্রশ্নের উত্তরে মেয়র জানান, সরকারী সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করবে পৌরসভা। তবে জরুরি প্রয়োজন হলে থোক বরাদ্ধে ত্রাণ কার্ডক্রম চালানো হবে।

প্রস্তাবিত বাজেট উপলক্ষ্যে আয়োজিত ওই সংবাদ সম্মেলনে পৌরসভার প্রধান প্রকৌশলী বাদশা আলমগীর, সচিব মো.দুলাল উদ্দিন, হিসাব রক্ষক মুমিনুল আলম, হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা শের বিন নঈম, প্যানেল মেয়র রাজু আহমেদ, পৌরসভার সকল কাউন্সিলর, সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর সাংবাদিকবৃন্দ সহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর...
© All rights reserved © 2020-2024 নায়াআলো ডটকম
Developed By HM.SHAMSUDDIN