1. admin@nayaalo.com : Ashrafhabib :
  2. nayaalo.com@gmail.com : News Desk : News Desk
ভৈরবে একাধিকবার বস্ মশার কয়েল ফ্যাক্টরীতে আগুন,ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি! - Nayaalo
শিরোনাম
জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী পাগল হাসান সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত! ভৈরবে সম্মিলন ফাউন্ডেশনের ৩য় শাখা উদ্বোধন ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা। কুলিয়ারচর উপজেলায় ইট বোঝাই ট্রাক থেকে পরে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু! রায়পুরা রক্তবন্ধু মানবকল্যাণ সোসাইটির পক্ষ থেকে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ। ভৈরব উপজেলা’বাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃমোশারফ হোসেন। ভৈরবে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন! ছেলেকে হত্যা করার পর বাবার আত্মাহত্যা! বাংলাদেশ প্রাইভেট ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স এসোসিয়েশন,ভৈরব শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবির অভিযোগ করার প্রতিবাদে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত। ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প.প. কর্মকর্তা ডাঃবুলবুল আহমদ এর নেতৃত্বে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস ২০২৪ র‌্যালি ও আলোচনা সভা পালন। ভালোবাসার বীজ – সাঈদা নাঈম

ভৈরবে একাধিকবার বস্ মশার কয়েল ফ্যাক্টরীতে আগুন,ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি!

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৭ মার্চ, ২০২৪
  • ৩১ জন দেখেছেন

অনলাইন ডেস্ক:
ভৈরবে বস্ মশার কয়েল তৈরীর কারখানা নানা কেমিকেলস কয়েল ফ্যাক্টরিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ৬ মার্চ বুধবার রাত আড়াইটার দিকে পৌর শহরের পঞ্চবটি বালুর মাঠ এলাকায় ফজলুর রহমানের বস্ মশার কয়েল তৈরির ফ্যাক্টরিতে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ভৈরব ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট।
ভৈরব বাজার ফায়ার সার্ভিসের (ভারপ্রাপ্ত) স্টেশন অফিসার মুছা ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাত আড়াইটায় অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায়। পরে সেখানে গিয়ে এলাকাবাসীর সহায়তায় প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে আবাসিক এলাকায় কয়েল ফ্যাক্টরি হওয়ায় সেখানে পানি খুঁজে পেতে বিলম্ব হয়েছে। ফ্যাক্টরিতে আগুন নির্বাপণ যন্ত্র ছিল কিন্তু আগুনের তীব্রতা বেশি হওয়ায় নেভানো সম্ভব হয়নি। এখানে তাদের নিজস্ব পানির ট্যাঙ্কি নেই। এমনকি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ও কাগজপত্রও ছিল না। ভৈরবে অনেক কয়েল ফ্যাক্টরীতেই আগুন নেভানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেই।
তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে এই আগুন সূত্রপাত কয়েল তৈরীর ডায়ার মেশিন অতিরিক্ত গরম হওয়ার ফলে হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমান আনুমানিক ৮ থেকে ১০ লক্ষ টাকা হবে।
এদিকে আগুনের কারণে স্থানীয়দের মনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। আবাসিক এলাকায় গড়ে উঠেছে একাধিক কয়েল কারখানা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি বলেন, বস মশার কয়েল ফ্যাক্টরির মালিক মো. ফজলুর রহমান বিভিন্ন মালিকের নামে-বেনামে বৈধ-অবৈধ আনুমানিক ১৫টি কয়েল ফ্যাক্টরিতে বস্ মশার কয়েল তৈরী করে। গত দুই মাসে তার তৈরী কয়েল কারখানার তিনটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।
কয়েল ফ্যাক্টরীর মালিক তানভির আহমেদ বলেন, রাতে ডায়ার মেশিনের অতিরিক্ত হিটে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। ফায়ার সার্ভিস ২ ঘণ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কয়েলসহ ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর...
© All rights reserved © 2022 নায়াআলো ডটকম
Developed By HM.SHAMSUDDIN